1. ahmedfahadbd24@gmail.com : ক্রিয়েটিভ নিউজ : Fahad Ahmed
  2. anirban.samad07@gmail.com : Samad Azad : Samad Azad
মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০, ০৬:৩৮ অপরাহ্ন
নোটিশ
সংবাদকর্মী আবশ্যক: সকল বিভাগের জেলা, উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে কিছু সংখ্যক সংবাদকর্মী ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি জরুরী ভিত্তিতে নেওয়া হবে। আগ্রহীরা ই-মেইল creativenewsbd2019@gmail.com সিভি পাঠান অথবা ০১৮৬৮-২৫২৫২৭/০১৩১৪-৮২২২৯২ যোগাযোগ করুন। অভিজ্ঞ সম্পন্ন এবং কাজের প্রতি দায়ীত্বশীল প্রার্থীদের অগ্রাধীকার দেয়া হবে।
সংবাদ শিরোনাম
আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করল নবীগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাব এম এ সালাম এর সাংবাদিকতার অর্ধশত বর্ষ উদযাপন ও প্রবীণ সাংবাদিকদের সম্মাননা দিলো মৌলভীবাজার ইমজা সুনামগঞ্জে বানের পানিতে ভেসে গেছে ষোলঘর পুকুরের মাছ সুনামগঞ্জে বন্যা দুর্গতরা ত্রাণের অপেক্ষায় খলিলপুর ইউপির অন্তর্ভুক্ত কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হবিগঞ্জ-১- আসনের মাননীয় সাংসদ গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ এম.পি মহোদয় প্রসঙ্গে কিছু কথা বন্ধু পোলট্রি ফার্ম ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ মামলায় যুবলীগ নেতা গ্রেফতার বানভাসিদের পাশে ধর্মপাশা প্রেসক্লাব নবীগঞ্জে মাস্ক ব্যবহার না করায় জরিমানা মশলাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্র্রব্যের বাজারে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরের অভিযান

বিজ্ঞাপন

কুমিল্লার কুঞ্জশ্রীপুরে ঢাকার দক্ষিণের সম্রাট সহযোগীসহ গ্রেফতার

  • আপডেট টাইম রবিবার, ৬ অক্টোবর, ২০১৯
  • ২৩২ বার
নূরুল ইসলামঃ
সব জল্পনা-কল্পনা অবসান ঘটিয়ে র‌্যাব’র অভিযানে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের কুঞ্জশ্রীপুর গ্রাম থেকে ধরা পড়েছে বহুল আলোচিত ক্যাসিনো জগতের মূলহোতা ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট। একই সাথে র‌্যাব গ্রেফতার করেছে তার সহযোগী এনামূল হক আরমানকে। ৬ অক্টোবর ভোর সাড়ে ৫টার দিকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এরপর ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি সম্রাটকে নিয়ে রাজধানীর কাকরাইলে তার কার্যালয় ভূঁইয়া ট্রেড সেন্টারে র‌্যাব অভিযান চালাচ্ছে বলে জানা গেছে। রোববার (৬ অক্টোবর) দুপুর বেলা সোয়া একটার দিকে সম্রাটকে নিয়ে ওই কার্যালয়ে যায় র‌্যাব।


ক্যাসিনো-বিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর এই ভূঁইয়া ট্রেড সেন্টারে ছয় দিন অবস্থান করে স্থান বদল করেন সম্রাট। আজ ভোরে (৬ অক্টোবর) কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে সম্রাট ও যুবলীগের আরেক নেতা আরমানকে গ্রেফতারের পর ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে দেশজুড়ে শুরু হওয়া আলোচনা-সমালোচনার অবসান হয়েছে। গ্রেফতারের পর তাদের ওইদিন দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর উত্তরায় র‌্যাব সদর দপ্তরে নেওয়া হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের নিয়ে অভিযানে বের হয় র‌্যাব। বেলা সোয়া একটার দিকে সম্রাটকে তার কাকরাইলের কার্যালয়ে নেওয়া হয়।

গত মাসের মাঝামাঝি ক্যাসিনো-বিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজিসহ নানা অভিযোগের কারণে যুবলীগ নেতা সম্রাট নাম ব্যাপক আলোচনায় আসে। অভিযানে র‌্যাব ও পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন যুবলীগ, কৃষক লীগ ও আওয়ামীলীগের কয়েকজন নেতা। তবে সম্রাট ছিলেন ধরাছোঁয়ার বাইরে। এতে মিডিয়া পল্লীসহ দেশব্যাপি তিনি আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে পরিণত হন।
অভিযান শুরুর প্রথম তিন দিন সম্রাট দৃশ্যমান ছিলেন। এরপর ছয় দিন তিনি কাকরাইলে তার ব্যক্তিগত কার্যালয়ে অবস্থান করলেও বিভিন্ন জনের সাথে ফোনালাপ হত। এরপর তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেন। ব্যক্তিগত কার্যালয়ে তিনি অবস্থানকালে শতাধিক যুবক তাকে পাহারা দিয়ে রাখতো বলে জানা গেছে। পরে তার অবস্থান নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়। আজ র‌্যাব সদস্যরা কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের কুঞ্জশ্রীপুর গ্রামের একটি বাড়ি ঘেরাও করে সম্রাট ও তার সহযোগী আরমানকে গ্রেফতার করে। তারা সেখানকার এক জামায়াত নেতার বাড়িতে লুকিয়ে ছিলেন।


গত ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকার ক্লাবগুলোতে ক্যাসিনো-বিরোধী অভিযান শুরু করে র‌্যাব। ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগের প্রভাবশালী কিছু নেতাদের নিয়ন্ত্রণে এই অবৈধ ক্যাসিনো বাণিজ্য চলছিল। প্রথম দিন ফকিরাপুলের ইয়ংমেনস ক্লাবে অভিযান চালায় র‌্যাব। এরপরই গুলশান থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ক্লাবটির সভাপতি খালেদ হোসেন ভূঁইয়াকে। তবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও রাজনৈতিক অঙ্গনের লোকেরা মনে করেন, ঢাকায় ক্যাসিনো ব্যবসার অন্যতম নিয়ন্ত্রক সম্রাট।


র‌্যাব’র গণমাধ্যম ও আইন শাখার দায়িত্ব প্রাপ্ত লে. ক. সরওয়ার বিন কাসেম সম্রাট ও আরমানকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে বিভিন্ন তথ্য জানিয়েছেন।

ক্রিয়েটিভ নিউজ/ফাহাদ

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯-২০২০
Theme Customized By BreakingNews